মামলার জটিলতায় দীর্ঘ ৮ বছর পার: নির্বাচন চাই বেনাপোল পৌরবাসী।

সেপ্টেম্বর ২৫ ২০২০, ০৯:১২

Spread the love

বেনাপোল পৌর সভার মামলার জটিলতায় দীর্ঘ প্রায় ৮ বছর পর বেনাপোল বাসী নতুন করে পৌর সভা নির্বাচন চাই। এজন্য বেনাপোল পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে সাধারন মানুষের মধ্যে নানান প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। সম্প্রতি দেশের যে সমস্ত পৌরসভায় মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে নির্বাচন স্থগিত রয়েছে সেসব পৌরসভায় মামলা বর্ধিত করে নতুন করে নির্বাচনের প্রস্থুতি নিতে যাচ্ছে সরকার।
সূত্রে জানাগেছে, বিগত বিএনপি সরকারের আমলে বিএনপি নেতাদের দাবির মুখে ২০০৬ সালে বেনাপোল পৌরসভা স্থাপিত হয়। সে সময় বেনাপোল পৌরসভার প্রশাসক হিসেবে দায়ীত্বে ছিলেন বিশিষ্ঠ সিএন্ডএফ ব্যবসায়ী ও বিএনপি নেতা আলহাজ্ব শামছুর রহমান। এরপর ফকরুদ্দিন ও মঈনূদ্দিন সরকারের আমলে শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বশীর আহম্মেদ প্রশাসন দায়িত্ব পালন করেন। অতঃপর জাতীয় নির্বাচনের পর আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসলে ১০১০ সালের ১৩ জানুয়ারী বেনাপোল পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে বিএনপি সমর্থক প্রার্থী নাজিম উদ্দিনকে পরাজিত করে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী আশরাফুল আলম লিটন জয়ী হন। তারপর থেকে আজ অবধী বেনাপোল পৌর সভায় আর কোন নির্বাচন হয়নি। কারন বেনাপোল নারানপুর গ্রামের হাফিজুর রহমান নামে এক ব্যাক্তি তার এলাকার কিছু অংশ পৌরসভার সীমানায় অন্তভুক্তি না করে উচ্চ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। সেই থেকে মামলা জটিলতার কারনে বেনাপোল পৌরসভার মেয়াদ উত্বীর্ন হলেও আজ অবধী নতুন কোন নির্বাচন হয়নি।যে কারনে এখন সাধারন মানুষ নতুন করে নির্বাচন চাই।
এ ব্যাপারে বেনাপোল পৌরসভার একজন নাগরিক নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, কৌশলগত কারনে নির্বাচন না করার জন্য এবং ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখতে বেনাপোল পৌরসভার মেয়র তার কাছের একজনকে দিয়ে মামলা করে ভোট বন্ধ করে রেখেছে। তিনি বলেন বেনাপোলের সকল শ্রেনীর নাগরিকেরা চাই নতুন করে বেনাপোল পৌরসভায় নির্বাচন হোক।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে বেনাপোল ৩ নং ওয়ার্ডের ইজি বাইক চালক শহীদ হোসেন বলেন, অনেক দিন হলো বেনাপোল পৌর সভায় ভোট হয়নি। আমরা বেনাপোল পৌর সভার ভোট চাই।
বেনাপোল ১ নং ওয়ার্ডের সাদিপুর গ্রামের ব্যবসায়ী সেলিম রেজা বলেন, বেনাপোল প্রথম শ্রেনীর পৌরসভা। তাহলে কেন ভোট হচ্ছেনা। তিনি বলেন আমরা সাধারন ভোটার। আমরা ভোট চাই।
বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আলহাজ্ব মফিজুর রহমান স্বজন জানান, ৫বছর পরপর নির্বচন হলে ভালো হয়। তিনি বলেন যে সব সংসদীয় এলাকায় মামলা আছে সেসব এলাকায় তো জাতীয় নির্বচন হচ্ছে । তাহলে বেনাপোল কেন নির্বাচন হবে না। তিনি আরও বলেন বেনাপোল জনগনের দাবি পৌরসভায় ভোট হোক।
শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব নুরুজ্জামান বলেন, বেনাপোল পৌরসভায় ভোট হওয়া উচিৎ। তিনি বলেন মামলা জটিলতায় দীর্ঘ দিন ধরে ভোট আটকে আছে। বেনাপোলবাসী চাই বেনাপোল পৌর সভায় নির্বাচন হোক। জনগন ভালো নাগরিক সুবিধা পাক। এ জন্য দ্রæত ভোট হওয়া উচিৎ বেনাপোল পৌর সভায়।
বেনাপোল পৌরসভার সচিব মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, বেনাপোল পৌরসভা মন্ত্রনালয় থেকে কোন চিঠি পাননি। তিনি বলেন, মামলার বিষয়ে আমি কিছু জানি না।
শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডল বলেন, বেনাপোল পৌরসভার মামলা সংক্রান্তসহ সব তথ্য মন্ত্রনালয়ে দেওয়া হয়েছে। নতুন কোন চিঠি পাননি বলে জানান তিনি।
এ বিষয়ে বেনাপোল পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম লিটন জানান, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রনালয় থেকে মামলা বর্ধিত করন সংক্রান্ত কোন চিঠি পাওয়ার বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না। তিনি বলেন আমি এখন ঢাকাতে আছি। চিঠির বিষয়ে খোজ নিয়ে জানাবো বলে জানান তিনি।


Translate »