সমিতির কস্তির টাকা পরিশোধ করতে না পেরে হতাশায় ভুগছিলেন

ঋণ শোধের চাপে এক নারীর আত্মহত্যা!

জুন ১২ ২০২০, ১২:৫৩

Spread the love

ঝলক নিউজ :

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ঋ’ণ ও এনজিওর কি’স্তি পরিশোধের চাপে আত্মহত্যা করেছেন তিন সন্তানের মা। নিপা আক্তার (৩১) নামে ওই নারী মালয়েশিয়া প্রবাসী ওয়াদ

আলীর স্ত্রী। মঙ্গলবার (৯ জুন) সকালে উপজেলার গোপালদী পৌরসভার

রামচন্দ্রাদী গ্রামের বাড়িতে আ’ত্মহ’ত্যা করেন তিনি। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ১৪ বছর আগে পারিবারিকভাবে ওয়াদ আলীর সঙ্গে বিয়ে হয় নিপার। ৫ বছর আগে তার স্বামী

জীবিকার তাগিদে মালয়েশিয়ায় যান। বর্তমানে সেখানে লকডাউন থাকায় গ্রাম

থেকে বিদেশে অর্থ পাঠাতে হতো। পাশাপাশি সংসার খরচ, ঋণ এবং এনজিওর কি’স্তিও নিপাকেই পরি’শো’ধ করতে হতো। গত কয়েকমাস ধরে কি’স্তি ও ঋ’ণের টাকা প’রিশোধ করতে না পারায় চাপে পড়েন নিপা। সেই চাপ সামলাতে না পেরে তিনি

আ’ত্মহ’ত্যা করেন। স্থানীয় পৌরসভার কাউন্সিলর আলী আজগর জানান, শুনেছি পা’ও’না টাকা ও সমিতির কস্তির টাকা পরিশোধ করতে না পেরে হতাশায় ভুগছিলেন তিনি। সেই কষ্ট সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করতে পারেন।

গোপালদী পুলিশ ফাঁ’ড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোক্তার হোসেন জানান, ঋণের চাপে ও কি’স্তি প’রিশো’ধ করতে না পারার পাশাপাশি পরিবারের খরচ চালাতে হিমশিম

খেয়ে তিনি আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন বলে স্থানীয় ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে। পরিবারের সদস্যদের অনুরোধে দুপুরে লা’শ তাদের কাছে হ’স্তান্ত’র করা হয়েছে।


Translate »