কোটালীপাড়ায় নবম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধ’র্ষণ!

অক্টোবর ০৫ ২০২০, ১৭:৩৪

Spread the love

গোপা’লগঞ্জের কোটা’লীপাড়ায় নবম শ্রে’ণির এক স্কুলছা’ত্রীকে ধর্ষ’ণের অভি’যোগ উঠেছে বিশ্ববি’দ্যালয় পড়ু’য়া এক ছা’ত্রের বিরু’দ্ধে। এ ঘটনা’য় সোমবার ওই ছা’ত্রীর বাবা কোটালীপা’ড়া থানায় ধর্ষ’ণের অভি’যোগ এনে মাম’লা করেছেন।

অভি’যুক্ত ব্যক্তির নাম আলী হোসা’ইন হাওলাদার। তিনি উপজে’লার পূর্ণব’তী গ্রামের ম’হাসিন উদ্দিন হাওলাদা’রের ছেলে এবং ঢা’কার একটি বেস’রকারি বিশ্ববিদ্যা’লয়ের ছাত্র। তার’ সহযোগী বন্ধু’র নাম মাসুদ হাওলাদার। তিনি এ’কই গ্রামের ইব্রাহিম হাওলাদারের ছে’লে।

গত শনিবার উপজে’লার ধারাবাশা’ইল গ্রামের ইব্রা’হিম হাওলাদারের মা’ছের ঘেরপাড়ে এক’টি টং ঘরে এ ধর্ষণে’র ঘটনা ঘটে। ধর্ষ’ণের শিকা’র স্কুলছা’ত্রী কোটালী’পাড়া উপজে’লার স্থানীয় এক’টি স্কুলের নবম শ্রে’ণির ছাত্রী।

ভুক্ত’ভোগী ছাত্রী বলেন, গত শনি’বার সকাল ৯টায় প্রাই’ভেট পড়ে স্থা’নীয় চৌধুরী বাজা’রে খাতা ও ক’লম কিন’তে যায় সে। এ সময় আলী হোসা’ইন হাওলাদার ও মা’সুদ হাওলাদার তাকে ভয় দে’খিয়ে নৌকায় ক’রে ধারাবাসাইল গ্রামে অব’স্থিত একটি বিলের মধ্যে নি’র্জন মাছের ঘের’পাড়ে নিয়ে যায়। প’রে ঘের’পাড়ের একটি টং-ঘরে আ’লী হোসাইন তার স’ঙ্গে শারীরিক স’ম্পর্ক করতে বলে। এতে ওই স্কু’ল ছাত্রী রাজি না হওয়া’য় আলী হো’সাইন তাকে মারধ’র করে। মারধরে’র পর আলী হোসাইন হাওলাদার তা’কে ধর্ষণ করেন।

এ সম’য় তার বন্ধু মাসুদ হাওলাদার মোবা’ইল ফোনে এ দৃ’শ্য ধারণ করেন। এই ধর্ষ’ণের কথা কাউকে বল’লে এবং আগামীতে ডাকা’র পর না আসলে এই ‘দৃশ্য ফেস’বুকে ছেড়ে দেওয়ার হুম’কিও দেওয়া হয়। দুপুর ২টার দি’কে সে বাড়িতে আ’সার পর বিষ’য়টি তার মা’কে বলে।

ওই ছাত্রী’র মা বলেন, তার স্কুল’পড়ুয়া মেয়েকে ধ’র্ষণ ও মার’ধর করা হয়েছে। তিনি এ ঘট’নার সাথে জড়ি’তদের বি’চার দাবি করেন।

কোটালী’পাড়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাকারিয়া বলেন, স্কুলছা’ত্রীকে ধর্ষ’ণের ঘটনা’য় মাম’লা হয়েছে। দো’ষীদের গ্রেফতা’রের চে’ষ্টা চল’ছে। আগামী’কাল মঙ্গলবার ভুক্ত’ভোগী ছাত্রীকে ডা’ক্তারি পরীক্ষার জ’ন্য গোপালগঞ্জ ২৫০ শ’য্যা বিশিষ্ট জেনা’রেল হাসপাতালে পাঠা’নো হবে।


Translate »