ভারত একাই মোকাবিলা করতে সক্ষম চীনকে!

অক্টোবর ০৪ ২০২০, ০৩:০৫

Spread the love

ভারত ও চীনে’র মধ্যে চরম উত্তে’জনা বিরাজ ক’রছে। লাদাখ সী’মান্তে গলওয়ান উপত্যকা’য় চীনা সেনা’দের সঙ্গে সংঘ’র্ষের পর সতর্ক অব’স্থানে আছে দুই দে’শের সেনারা। এদিকে, যুক্ত’রাষ্ট্রের চতুর্প’ক্ষীয় জোট গঠ’নের প্রস্তাব সত্ত্বে’ও ভবিষ্যতে ভারত এককভাবে চী’নকে মোকাবিলা কর’তে পারবে বলে ইউ’রোপভিত্তিক গবে’ষণা প্রতিষ্ঠা’ন ইউরো’পিয়ান ফাউন্ডে’শন ফর সা’উথ এশি’য়ান স্টাডিজ (ইএফএস’এএস) এক প্রতিবে’দনে বলা হয়ে’ছে।

পূর্ব লাদা’খে সংঘর্ষের পর থেকে ভা’রত ও চীনে’র মধ্যে বেশ ক’য়েকটি আলো’চনা হয়েছে। চী’না সেনারা এখনো দে’পসাং সমভূ’মি অঞ্চল, গো’গরা এবং প্যাং’গং সো বরাব’র ফিঙ্গার্স অঞ্চ’লে উপ’স্থিত রয়েছে। ভার’তীয় প্রতির’ক্ষা মন্ত্রণাল’য়ের সাম্প্রতিক প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে’ ইএফএসএস বলেছে, ‘সা’মরিক ও কূট’নৈতিক প’র্যায়ে ব্যস্ততা ও সংলাপ অব্যা’হত থাকলেও উভয় দে’শের কাছে গ্রহণযোগ্য সমা’ধান এখনো খুঁজে পাওয়া যায়’নি। ফলে এই অচলা’বস্থা ও বর্তমান অবস্থা’ন দীর্ঘা’য়িত হও’য়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আ’সন্ন শীতে প্রতিকূল পরিবেশেও চী’না লাল ফৌজকে মোকাবেলা করে এলএসি’তে কৌশলগত অবস্থানগুলোর নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে ভারতীয় সেনাবাহিনী এরই মধ্যে ব্যাপ’ক প্রস্তুতি শুরু করেছে। রীতিমতো যুদ্ধের বার্তা দিয়ে চীন’কে হুঁশিয়ারি দিয়ে ভারতীয় সেনা’বাহিনী বলেছে, শীতের লাদা’খেও পুরোদমে যুদ্ধে’র জন্য প্রস্তুত ভার’তীয় সেনা।

এদিকে, চীন’কে নজরে রেখে সামরিক সম্প’র্ক আরও মজবুত করছে ভার’ত ও জাপান। দুই দেশে’র সেনাবাহিনীর মধ্যে সহযোগিতা বাড়িয়ে তুলতে সম্প্রতি প্রতি’রক্ষা চুক্তি স্বাক্ষর ক’রেছে নয়াদিল্লি ও টোকিও। এই চু’ক্তির আসল উদ্দেশ্য চী’না বাহিনীর বিরু’দ্ধে একটি সামরিক বলয় গড়ে তোলা বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা। এবার জাপানের সঙ্গে হাত মিলিয়ে প্রযুক্তিতে চীনকে আ’রও কোণঠাসা করার চেষ্টা করছে মো’দি সরকার। 5G এবং 5G প্লাসের মতো উন্নত প্রযুক্তি তৈরিতে যৌথ উদ্যোগ নিচ্ছে ভারত ও জাপান। এর জন্য QUAD স্ট্র্যাটেজিস ডায়ালগ সদস্য- আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া ও ইজরাইলের সাহায্য নেবে দুই দেশ।

জানা গিয়েছে, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি তৈরির জন্য QUAD-এর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সঙ্গে আগামী মাসেই একটি বৈঠক হবে জাপানে। সেই বৈঠকেই 5G ও 5G প্লাস প্রযুক্তির প্রস্তাব দেবে ভারত ও জাপান। এখানেই শেষ হয়, প্রযুক্তি বিষয়ক ক্ষেত্রে (3GPP) চীনের প্রভাব কমাতে আরও কিছু পরিকল্পনা রয়েছে ভারতের। এতদিন বেশির ভাগ চীনা প্রযুক্তি কোম্পানি গুলোই দাপট দেখিয়েছে। সেই সংখ্যা হ্রাস করাও অন্যতম লক্ষ্য ভারতের।

সম্প্রতি জাপা’নের নতুন প্রধানমন্ত্রী ইও’শিহিদে সুগার সঙ্গে কথা বলেছেন ভারতের প্রধা’নমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Modi)। সেখানেই স্ট্র্যাটেজিক ও গ্লোবাল পার্টনারশিপকে নতুন উচ্চতায় পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে হাত মেলান তারা। দুই দেশই বর্তমানে চীনা সেনার আগ্রাসনের মুখে। লাদাখে যেমন চোখ রাঙাচ্ছে ‘ড্রাগন’, তেমনই সে’নকাকু দ্বীপেও শ্যেণ নজর তাদের। এমন পরিস্থিতিতে প্রযুক্তির দিক থেকে চীনকে ভোঁতা করে দিতে ছক কষছে এই দুই দেশ। আর এই পরিকল্পনাকে বাস্ত’বায়িত করতে আমে’রিকা, অস্ট্রেলিয়া ও ইজরাইল’কে পাশে চাইছেন মোদি-সুগা।

আমাদের ফেসবুক পাতা

প্রয়োজনে কল করুন 01740665545

আমাদের ফেসবুক দলে যোগ দিন


Translate »