বাংলাদেশে রাইড শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ‘পাঠাও’ সার্ভিসের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বাংলাদেশি যুবক

ফাহিম সালেহ এর টুকরা করা বীভৎস লাশ উদ্ধার করেছে নিউইয়র্ক পুলিশ!

জুলাই ১৬ ২০২০, ০৯:৫৩

Spread the love

আজকের ঝলক নিউজ

ফাহিম সালেহ এর টুকরা করা বীভৎস লাশ উদ্ধার করেছে নিউইয়র্ক পুলিশ!

বাংলাদেশে রাইড শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম ‘পাঠাও’ সার্ভিসের সহ-প্রতিষ্ঠাতা বাংলাদেশি যুবক ফাহিম সালেহ অল্প বয়সে বেশ ধনীতে পরিণত হয়েছিলেন । গত বছর ম্যানহাটনের লাক্সারিয়াস এই বিল্ডিংয়ের ৭ তলায় ফাহিম সালেহ ২২ লাখ ইউএস ডলার দিয়ে একটি ফ্ল্যাট কিনেছিলেন।

১৪ জুলাই বেলা সাড়ে তিনটার দিকে ম্যানহাটনের খুনির সাথে একই লিফটে সেভেন্থ ফ্লোরে গিয়েছেন।লিফটে সন্দেহজনক চোখে খুনির দিকে তাকিয়েছিলেন। এ সময় স্যুট পরা, হাতে গ্লাভস ও মুখে মাস্ক পরা একজনকে তাঁর পেছনে যেতে দেখা গেছে অ্যাপার্টমেন্টের সিসি ক্যামেরায়। একই ফ্লোরে নেমে নিজের ফ্ল্যাটের দরোজা খুলতেই খুনি ধাক্কা মেরে তাকে ভেতরে ঢুকিয়ে দেয়। তারপর হত্যা করার পর ইলেকট্রিক করাত দিয়ে মৃতদেহ থেকে হাত, পা ও মাথা বিচ্ছিন্ন করে পাশের একটি ব্যাগে রাখা হয়।

নিউইয়র্কের ‘ডেইলি নিউজ’ পত্রিকা জানিয়েছে, ১৪ জুলাই ফাহিম সালেহর বোন পুলিশকে ফোন করে জানান, তিনি তাঁর ভাই ফাহিম সালেহর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছেন না। পুলিশকে তিনি একটু খোঁজ নিতে অনুরোধ করেন। বোনের ফোন কলের সূত্র ধরে ওই অ্যাপার্টমেন্টে একা থাকা ফাহিম সালেহকে খুঁজতে যায় পুলিশ। সেখানে গিয়ে তাঁর খণ্ডিত লাশ উদ্ধার হয়।

ফাহিম সালেহর জন্ম ১৯৮৬ সালে। তাঁর বাবা সালেহ উদ্দিন চট্টগ্রামের, আর মা নোয়াখালীর মানুষ। ফাহিম পড়াশোনা করেছেন আমেরিকার বেন্টলি ইউনিভার্সিটিতে ইনফরমেশন সিস্টেম নিয়ে। তিনি রাইড শেয়ারিং অ্যাপ পাঠাওয়ের অন্যতম উদ্যোক্তা। ২০১৪ সালে নিউইয়র্ক থেকে ঢাকায় গিয়ে পাঠাও চালু করে নতুন প্রজন্মের উদ্যোক্তা হিসেবে খ্যাতি লাভ করেন তিনি।

কি বীভৎস নৃশংসতা!! পুরো ঘটনা শুনে মনে হয় কোনো ফিল্মের সিরিয়াল কিলার এর বীভৎসতার শিকার নিহত ফাহিম সালেহ। এনওয়াইপিডি পুরো বিষয়টি তদন্ত করছে। এখন পর্যন্ত এ নিয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি।


Translate »