গ্লোবাল টাইমসের খবর

নভেম্বরের মধ্যেই জনগণ ব্যবহার করতে পারবে চীনা টিকা

সেপ্টেম্বর ১৫ ২০২০, ১৪:২২

Spread the love

আজকের ঝলক নিউজ :

পৃথিবীর সকল মানুষ তাকিয়ে আছে করোনা ভ্যাকসিনের দিকে । আপতত স্বস্তির খবর হলো চীনে উৎপাদিত করোনা ভাইরাসের টিকা জনগণের ব্যবহারের জন্য প্রস্তুত হতে পারে নভেম্বরের মধ্যে। চাইনিজ সেন্টার ফর ডিজিজ প্রিভেনশন এন্ড কন্ট্রোলের (সিডিসি) বিশেষজ্ঞ উ গুইঝেন এমন আশার বাণী শুনিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এরই মধ্যে দুটি টিকা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। এ টিকা দুটিকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। আরো একটি টিকার মূল্যায়ন পরীক্ষা করা হচ্ছে।

রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম অনলাইন গ্লোবাল টাইমসে প্রকাশিত এক খবরে এ কথা বলা হয়েছে। এতে আরো বলা হয়, সিডিসির বায়োসিকিউরিটি বিষয়ক প্রধান বিশেষজ্ঞ উ গুইঝেন। তিনি বলেছেন, করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে বিশ্বে গবেষণায় এগিয়ে আছে চীন ।

তারা করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে টিকা তৈরিতে কাজ করছেন। তার মতে, বিশ্বজুড়ে এখন এরকম ৯টি টিকার তৃতীয় ধাপের ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা চলছে। এই ৯টি টিকার মধ্যে ৫টিই চীনের আবিষ্কার। উ-গুইঝেন বলেছেন, নভেম্বরের শুরুতে বা ডিসেম্বরে সাধারণ চীনা নাগরিক তাদের এসব টিকা ব্যবহার করতে পারবেন। কারণ, তৃতীয় ধাপের ক্লিনিক্যাল পরীক্ষা চলছে মসৃণ গতিতে। তিনি আরো বলেন, একজন স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে এই টিকা নিয়েছি আমি নিজে। এখন আমি সুস্থ বোধ করছি। তার মতে, এই টিকা ১ থেকে ৩ বছর কার্যকর থাকতে পারে শরীরে।

তিনি আরো জানিয়েছেন নভেল করোনা ভাইরাস একটি উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ ভাইরাস। একটি নেগেটিভ প্রেসারে থাকা পরিবেশে এটি প্রস্তুত করতে হয়। দেশটির স্বাস্থ্য বিষয়ক কমিশনের বিশেষজ্ঞরা এখন এই টিকা উৎপাদনের বিষয়ে নিবিড়ভাবে পর্যালোচনা করছেন। বিশ্বজুড়ে এই টিকার কমপক্ষে ৩০টি ক্লিনিক্যাল পর্যায়ে প্রবেশ করেছে। তার মধ্যে মাত্র ৯টি এখন পর্যন্ত তৃতীয় ধাপ বা চূড়ান্ত ধাপে প্রবেশ করেছে । যা আশার আলো দেখাচ্ছে ।

ছবি সংগৃহীত ।


Translate »