কোভিড রুগি তিন ক্যাটাগরি

সবার জন্য করোনার চিকিৎসা একরকম নয়

আগস্ট ১১ ২০২০, ২১:৪০

Spread the love

আজকের ঝলক নিউজ :

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা ইউনিটে কাজ করা একজন ডাক্তার তার অভিজ্ঞতার আলোকে সচেতনতামূলক পোষ্ট দিয়েছেন তার ফেসবুক ওয়ালে । পাঠকদের সচেতনতার জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো ।

আজ প্রায় ছয় মাস হল বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস আক্রমণ শুরু হয়েছে। এই ছয় মাসে অনেক কিছু হয়েছে। মানুষ আর করোনা ভয়ে ভীত নয়। সবার ভিতরে একটা ধারণা করোনা ভাইরাস কমে গেছে, এটা বাংলাদেশে কিছু করতে পারবে না। আসলে কি তাই। টেস্ট কমছে কোভিড কমে নাই। যাদের পরিবারের একজন ব্যক্তিকে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়, যাদের অক্সিজেন লাগে তারা বুঝতে পারে কোভিড কেমন।

কোভিড রুগি তিন ক্যাটাগরি। মৃদু সংক্রমণ, মাঝারি ও ক্রিটিকাল। মৃদু রুগি এমনই ভালো হয়ে যায়।

এর সংখ্যা ৯০%।এরাই ভালো হয়ে বলে কোভিড কোন অসুখ না, সিজনাল ফ্লু এর মত। এরাই আবার অন্যকে ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে কোভিড চিকিৎসা দেয়। কিন্তু বাকি ১০%??? এদের কিন্তু সঠিকভাবে চিকিৎসা দরকার।

মাঝারি সংক্রমন যাদের তাদের যত দ্রুত টেস্ট করে চিকিৎসা শুরু করা যায় তাদের তাদের বাঁচার সম্ভাবনা ততও বেশি। কিন্তু এই রুগি বিশেষ করে বয়স্ক ও অন্যান্য অসুখ আছে তাদের চিকিৎসা করতে দেরি করলে ক্রিটিকাল হয়ে যায়।

তখন তাকে বাচানো কঠিন হয়ে পরে। এই মাঝারি বা জটিল রুগিকে ঠান্ডা কাশির ওষুধ বা ভিটামিন বা এন্টিবায়োটিক না সম্পূর্ন আলাদা চিকিৎসা ব্যবস্হা দিতে হয়। আমার চার মাসের কোভিড ডিউটি করে অভিজ্ঞতা হলো – দ্রুত চিকিৎসা রোগিকে সুস্থ করে, যত দেরী তত বিপদ। সবাই স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলুন।

ডা: জুয়েল বাড়ৈ এমবিবিএস, এফসিপিএস (মেডিসিন) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

আমাদের ফেসবুক পাতা

প্রয়োজনে কল করুন 01740665545

আমাদের ফেসবুক দলে যোগ দিন


Translate »