অতীষ্ট কলাপাড়াবাসী 

করোনায় বেড়েছে চোরের উপদ্রব

জুলাই ১৯ ২০২০, ১৩:৩৭

Spread the love

করোনায় বেড়েছে চোরের উপদ্রব, অতীষ্ট কলাপাড়াবাসী

রাসেল কবির মুরাদ , কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি : কলাপাড়ায় চোরের উপদ্রব বেড়েছে অত্যাধিক মাত্রায়। মাত্র কয়েকদিন আগে পৌরশহরের প্রান কেন্দ্র এতিমখানা এলাকায় সহকারী জজ আদালত ও জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত ভবনে দুধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটে, এর দু’দিন পরই পৌরশহরের জগন্নাথ আখড়াবাড়ী’র বাসিন্দা মধ্যটিয়াখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কনা রানী বিশ্বাস’র বাড়ীতে চোরেরা হানা দেয় । তাঁর বাড়ীর জানালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করার সময় চোরের টর্চের আলোতে বাড়ীর লোকজন সজাগ হয়ে গেলে চোরেরা সটকে পড়ে। এর আগে দিনে-দুপুরে নীলগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট নাসির মাহমুদের পৌরশহরের রহমতপুর এলাকার বাড়ীতে চুরির ঘটনা ঘটে।

এছাড়া ধানখালী কলেজের শিক্ষক জিসান হায়দার আলমগীরের মংগলসুখ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সড়কের ভাড়াটিয়া বাড়ীতে দিনে-দুপুরে চুরির ঘটনা ঘটে । এছাড়াও মোবাইল ফোন সহ অন্তত: অর্ধশত মোটরসাইকেল চুরির ঘটনা ঘটনায় মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে । দিনে-দুপরে এভাবে চুরির ঘটনা ঘটনায় মানুষ পুলিশ প্রশাসনের টহল কিংবা নৈশ প্রহরীদের প্রহরা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে।

স্থানীয়রা জানায়, চোরের দল যে সকল ঘর-বাড়ীতে কিংবা অফিস আদালতে চুরির ঘটনা ঘটিয়েছে তা এক সময় কলাপাড়ায় ছিল না বললেই চলে । এসকল চোরের দল পরিকল্পিত ভাবে বিশেষ করে চাকুরীজীবিদের বাসা-বাড়ীতে তারা কখন বাড়ীতে থাকেন না কিংবা অফিসে যান ,এসময় তাদের বাসায় হানা দেয় । তাদের লক্ষ্য নগদ টাকা কিংবা স্বর্নালংকার। কোন প্রকার মালামাল নয় । অপরদিকে মোটর সাইকেল চোরদের টার্গেট অপেক্ষাকৃত ভাল এবং দামী মোটর সাইকেল । চোরের এ উপদ্রপ কমাতে কোন মহলের কোন মাথা ব্যাথা নেই। ফলে মানুষ বিপদাপন্ন ও অসহায় হয়ে পড়েছে করোনা ভাইরাসের পাশাপাশি সংঘবদ্ধ এ চোরদের কাছে ।


Translate »