চল্লিশেও এখনো সুইট সিক্সটিন পপি !!

সেপ্টেম্বর ১৪ ২০২০, ২০:২৪

Spread the love

ঝলক বিনোদন

বাংলা সিনেমার হট নায়িকা পপি বয়স যেন তার বাড়ছেই না! ৪১ এ পা দিলেও এখনো যেন তার বয়স ওই সুইট সিক্সটিনেই আটকে আছে। ইতিমধ্যে ৪১ এ পা দিয়েছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের এই ড্রিম গার্ল।

অনেকেই জানেন ছবি শুরুর ১৮ মিনিট ৪৩ সেকেন্ড এ দেখা যায় পপি হেলে দুলে দৌড়ে এসে বাবা হুমায়ুন ফরিদীর সামনে এসে দাড়ান। এ সময় তার পরনে ছিল নিল কালারের স্কার্ট। এই সিকোয়েনস টিই ছিল পপির জীবনের প্রথম বড়ো পর্দায় আগমনের প্রথম দৃশ্য। এই ছবিতে পপির “পপি” নামটিই ব্যাবহার করেন পরিচালক। ছবিটি সেই সময়ে ৭ কোটি টাকা ব্যবস্যা করে মাইলফলক অরজন করে। লাক্স আনন্দ বিচিত্রার সুন্দরী প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে পরিচিতি লাভ করেন পপি। ১৯৯৭ সালে সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত আমার ঘর আমার বেহেশত ছায়াছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে পা রাখেন, পপি কিন্তু তার প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র কুলি। মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত এই চলচিত্রে তার বিপরীতে অভিনয় করেন ওমর সানি।

২০০৮ সালে নারগিস আক্তার পরিচালিত এইডস বিষয়ক সচেতনতামূলক ছায়াছবি মেঘের কোলে রোদ ও চন্দন চৌধুরী পরিচালিত কি যাদু করিলা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। মেঘের কোলে রোদ চলচ্চিত্রের জন্য তিনি অর্জন করেন দ্বিতীয় বারের মত শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এছাড়া কি যাদু করিলা চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য অর্জন করেন শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে বাচসাস পুরস্কার। পরের বছর সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড পরিচালিত গঙ্গাযাত্রা ছায়াছবিতে ধুঙ্গরের চরিত্রে অভিনয় করেন। এ চলচ্চিত্রের জন্য তিনি তৃতীয় বারের মত শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান।

পপি এখনো সিনেমা জগতে ক্লিন ইমেজে আছেন ধরে রেখেছেন নিজের রুপ ।


Translate »