সুন্দর বনকে রক্ষা করতে হবে

আম্পানেও দেশকে বাঁচাতে মায়ের ভূমিকায় সুন্দরবন

মে ২১ ২০২০, ২৩:০৫

Spread the love

 

সিডর, আইলা থেকে শুরু করে বড় বড় ঘুর্ণিঝড় ও জলোচ্ছাস থেকে বার বার বাংলাদেশের উপকূলীয় মানুষকে রক্ষা করছে সুন্দরবন এবারেও তার ব্যতিক্রম হলোনা । ২১ মে রাতের সুপার সাইক্লোন আম্পানের বিশাল আঘাত ও ক্ষয়ক্ষতি থেকে নিজের বুক পেতে দিয়ে দেশকে রক্ষা করলো এ বিশাল বন । সুন্দরবন দেশকে জানিয়ে দিলো তার প্রয়োজনীয়তা কতটুকো । কারো উপকার করতে গেলে নিজের ক্ষতি হবে এটা প্রকৃতির নিয়ম তাই বার বার সুন্দরবন ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে । ইতিমধ্যে বন বিভাগ ৩ কর্ম দিবসের মধ্যে সুন্দরবনের ক্ষয়ক্ষতি নিরুপনে প্রতিবেদন তৈরী করবে বলে জানা গেছে ।

বাগেরহাট প্রতিনিধি ঝলক নিউজকে জানিয়েছেন ৮-১০ ফুট পানির উচ্চতা ও প্রচন্ড ঘুর্ণিবাতাস ২১০ কিমি বেগে  আঘাত হানে সুন্দর বনের উপর ।

সুন্দরবন আমাদের রক্ষা কবজ। সুন্দরবনের জন্ম হয়েছেই আমাদের রক্ষা করার জন্য। এ বন আমাদের কাঠ দেবে সম্পদ দেবে এজন্য এর জন্ম হয়নি। এগুলো আমাদের বাড়তি পাওনা। গাছের মূল ভূমিকা অক্সিজেন দেওয়া, ঝড়-বৃষ্টি থেকে রক্ষা করা। এর ফাঁকে ফাঁকে আমরা কিছু সম্পদ আহরণ করি। গাছের মূল ভূমিকা পালন করতে হবে বলেই সুন্দবনের বাংলাদেশের এই লোকেশনে অবস্থান। বাংলাদেশে ঝড় প্রবেশের মুখেই সুন্দরবনের অবস্থান। এর কারণে ঝড় প্রবেশ করতেই বনে বাধার সম্মুখীন হয়। সুন্দরবনের জন্মই প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে রক্ষা করার জন্য।

সুপার সাইক্লোন আম্পানের প্রভাবে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে মারা গেছে ৭২ জন ও বাংলাদেশে ২৫ জন । বাংলাদেশে প্রাথমিক ভাবে ১১শ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি নিরুপন করা হয়েছে বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয় । সুন্দরবন না থাকলে দক্ষিাঞ্চলের মানুষের ভাগ্যে কী ছিলো তা সহজেই অনুমেয় ।

সময় এসছে সুন্দরবনের প্রতি আমাদের আরো মনোযোগ দেবার । উপকূলকে বাঁচাতে হলে সুন্দরবনকে শুক্তিশালী করার কোন বিকল্প নেই ।


Translate »