ইবির আবাসিক শিক্ষার্থীদের টিকা গ্রহণ শুরু

‘দ্রুত সব শিক্ষার্থীকে টিকার আওতায় আনা হবে’-ইবি প্রো-ভিসি

জুলাই ১৩ ২০২১, ১৭:০০

Spread the love

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি, ইবি-

নানা জটিলতার পর কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রহণ শুরু করেছে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থীরা। সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন করে যার যার এলাকা থেকে ভ্যাকসিন নিচ্ছে তারা। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ‘শিক্ষার্থীদের টিকা গ্রহণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, টিকা সরবরাহকারী সংস্থাসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি। আশা করছি দ্রুততম সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীকে টিকার আওতায় আনা হবে।’

মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) বেলা ১২টার দিকে নিজ এলাকা নাটোর থেকে টিকা গ্রহণ করেছেন বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী জাহিদ হাসান। তিনি বলেন, ‘টিকা নিতে কিছুদিন আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন ফরম পুরণ করি। পরে নির্দেশনা মোতাবেক সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন করি। বিভাগে আমার শিক্ষাবর্ষের প্রথম শিক্ষার্থী হিসেবে আজ টিকা গ্রহণ করলাম। নিজের মধ্যে অন্যরকম ভালো লাগা কাজ করছে। দ্রুত টিকা কার্যক্রম শুরু করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানাই।’

বরিশাল থেকে ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন আল-কুরআন অ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের শিক্ষার্থী সাইফুদ্দিন। তিনি বলেন, প্রথমে কিছুটা ভয় ভয় লাগছিল বিভিন্ন গুজব শুনে। তারপরও সাহস করে গেলাম টিকা নিতে। ব্যথা লাগার যেই ব্যাপারটা আগে শুনেছিলাম,তা আমি মোটেই অনুভব করিনি। আলহামদুলিল্লাহ, এখন কিছুটা হলেও সেফ লাগছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে ধন্যবাদ, আমাদের জন্য টিকা গ্রহণ সহজ করে দেওয়ার জন্য।

এর আগে গত ২ জুলাই ইউজিসির নির্দেশনা মোতাবেক শিক্ষার্থীদের সুরক্ষা অ্যাপে এনআইডি নম্বরসহ নিবন্ধনের নির্দেশ দেয় ইবি কর্তৃপক্ষ। তবে নির্দেশনার পর সঠিক তথ্য পুরণ করে বারবার নিবন্ধনের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় শিক্ষার্থীরা। এনিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে শিক্ষার্থীরা। পরে গত ১১ জুলাই ইউজিসির নির্দেশনা মোতাবেক নিবন্ধনকৃত শিক্ষার্থীদের তালিকা ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে ইবি কর্তৃপক্ষ। তালিকায় যেসব শিক্ষার্থীর নাম উল্লেখ নেই তাদের পুণরায় ওয়েবাসাইট থেকে নিবন্ধনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রকাশিত তালিকায় যাদের নাম নেই কিংবা ইতিপূর্বে যারা নিবন্ধন করেনি তাদের দ্রুততম সময়ে নির্ধারিত গুগল ফর্মে নিবন্ধন করতে বলা হচ্ছে। যাদের জাতীয়পরিচয় পত্র নেই তারা আপাতত নিবন্ধন করতে পারছে না। সে ব্যপারে সরকারি সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় রয়েছি। সিদ্ধান্ত এলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।’



আমাদের ফেসবুক পাতা




প্রয়োজনে কল করুন 01740665545

আমাদের ফেসবুক দলে যোগ দিন







Translate »