দেশে ৯ মাসে ৯৭৫ জন ধর্ষণের শিকার

অক্টোবর ০২ ২০২০, ১৫:২২

Spread the love

চলতি বছরে সারা দেশে নারীর প্রতি সহিং’সতা, বিশেষত ধ*র্ষ ণ, হ’ত্যা, যৌ’ন নি’পীড়ন এবং পারিবারিক নি’র্যাতনের ঘটনা ও ভ’য়াবহতা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছে আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)। সংস্থাটির ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নয় মাসের মানবাধিকার লঙ্ঘনের সংখ্যাগত প্রতিবেদনে উঠে এসেছে নি’পীড়নের এ তথ্য।

প্রতিবেদনে বলা হয়, এ সময়কালে ধ*র্ষ ণের শিকার হয়েছেন ৯৭৫ জন, যার মধ্যে একক ধ*র্ষ ণের শিকার হন ৭৬২ জন এবং সংঘবদ্ধ ধ*র্ষ ণের শিকার হন ২০৮ নারী। ধ*র্ষ ণের পর হ’ত্যার শিকার হন ৪৩ জন এবং আত্মহ’ত্যা করেছেন ১২ নারী। গত নয় মাসে যৌ’ন হয়’রানির শিকার হয়েছেন ১৬১ নারী। এর মধ্যে যৌ’ন হয়’রানির কারণে ১২ নারী আত্মহ’ত্যা করেছেন। যৌ’ন হয়’রানির প্রতিবাদ করতে গিয়ে ৩ নারী এবং ৯ পুরুষ নি’হত হয়েছেন। গত নয় মাসে পারিবারিক নি’র্যাতনের শিকার হয়েছেন ৪৩২ নারী। এর মধ্যে হ’ত্যার শিকার হন ২৭৯ নারী এবং পারিবারিক নি’র্যাতনের কারণে আত্মহ’ত্যা করেছেন ৭৪ নারী। এতে আরও বলা হয়, এ বছরের মা’র্চ থেকে শুরু হওয়া করো’নাভাই’রাসের সংক্রমণের সময়কালে নাগরিকের স্বাস্থ্যসেবা লাভের অধিকার লঙ্ঘনের পাশাপাশি চিকিৎসা অবহেলা, স্বাস্থ্য খাতের অনিয়ম, দু’র্নীতি, অব্যবস্থাপনা, সমন্বয়হীনতা, নজরদারি ও জবাবদিহিতার অভাব পরিলক্ষিত হয়েছে।

প্রতিবেদনে যৌতুককে কেন্দ্র করে নি’র্যাতনের ঘটনা তুলে ধরে বলা হয়, যৌতুককে কেন্দ্র করে নি’র্যাতনের শিকার হয়েছেন ১৬৮ নারী। এর মধ্যে যৌতুকের কারণে শারীরিক নি’র্যাতনের শিকার হয়েছেন ৭৩ জন। যৌতুকের জন্য শারীরিক নি’র্যাতন করে হ’ত্যা করা হয়েছে ৬৬ জনকে এবং নি’র্যাতনের শিকার হয়ে আত্মহ’ত্যা করেছেন ১৭ নারী। এছাড়া স্বামীর গৃহ থেকে বিতাড়িত হয়েছেন ১২ নারী। এ সময়ের মধ্যে ১১ গৃহকর্মী হ’ত্যার শিকার হন এবং ৩২ জন গৃহকর্মী বিভিন্ন ধরনের নি’র্যাতনের শিকার হয়েছেন। এছাড়া ধ*র্ষ ণের শিকার হয়েছেন ৪ জন এবং আত্মহ’ত্যা করেছেন ২ জন। এ সময়কালে এসিড সন্ত্রাসের শিকার হয়েছেন ২১ নারী।

আসকের প্রতিবেদন বলছে, গত নয় মাসে শি’শু নি’র্যাতন ও হ’ত্যা সংক্রান্ত পরিসংখ্যানও অ’ত্যন্ত উদ্বেগজনক। এ সময়কালে ১ হাজার ৭৮ শি’শু শারীরিক নি’র্যাতনসহ নানা সহিং’সতার শিকার হয় এবং হ’ত্যার শিকার হয়েছে ৪৪৫ শি’শু।

এছাড়া ৬২৭ শি’শু ধ*র্ষ ণ ও ২০টি বলাৎকারের ঘটনা ঘটেছে। গত নয় মাসে পেশাগত কাজ করতে গিয়ে ২০৯ জন সাংবাদিক বিভিন্নভাবে নি’র্যাতন ও হয়’রানির শিকার হয়েছেন বলে গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে। ৩ সেপ্টেম্বর কুড়িগ্রামে বিজয় টিভি’র ধাম’রাই প্রতিনিধি জুলহাস উদ্দিনকে গলা কে’টে হ’ত্যার ঘটনা ঘটে। এ সময়কালে গণপি’টুনির ঘটনায় মা’রা গেছেন মোট ৩০ জন।

এ সময়ে ভা’রত সীমান্তে নি’হত হয়েছেন ৩৯ জন। এর মধ্যে ভা’রতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফের গু’লিতে ৩২ জন এবং শারীরিক নি’র্যাতনে ৬ জন নি’হত হয়েছেন। এছাড়া আ’হত হয়েছেন ১৮ জন এবং অ’পহ’রণের শিকার হয়েছেন ২০ জন।


Translate »