অশ্লীল ছবি ধারণ করে স্বামীর কাছে পাঠানোয় সংসার ভেঙে যাওয়ার উপক্রম

গৃহবধূকে হোটেলে নিয়ে শারীরিক সম্পর্ক

আগস্ট ০৭ ২০২১, ১৫:৫৫

Spread the love

আজকের ঝলক নিউজ

নলছিটিতে গৃহবধূকে হোটেলে নিয়ে শারীরিক সম্পর্ক ও অশ্লীল ছবি ধারণ করে স্বামীর কাছে পাঠানোয় সংসার ভেঙে যাওয়ার উপক্রম 

ভিডিও https://www.facebook.com/100053506186694/videos/679747240091821

নলছিটি উপজেলার ফুলহরি গ্রামের লিটন ব্যাপারী নামের এক যুবক একই গ্রামের এক পুত্রবধূর সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করে কৌশলে বরিশাল নিয়ে হোটেলে রাত্রি যাপনে অচেতন করে শারীরিক সম্পর্ক এবং অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করে গৃহবধূকে বার বার ব্লাকমেইল করে শারিরীক সম্পর্কে বাধ্য করতে চেষ্টা করলে গৃহবধূ তাতে রাজী না হওয়ায় তার স্বামীর মোবাইলে ধারণ করা ছবি ও ভিডিও পাঠায়। এতে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর সংসার ভেঙে যেতে বসেছে। প্রতারণার শিকার গৃহবধূ নলছিটি থানায় গত ২৭ জুলাই-২১ তারিখ লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।
জানা গেছে, নলছিটি উপজেলার ফয়রা গ্রামের এসএসসি পাশ করা যুবতীর সাথে ফুলহরি গ্রামের বেল্লাল হোসেনের পুত্র সাইদুর রহমান ওরফে সাইফুলের সাথে দুই বছর পূর্বে বিবাহ হয়। বিয়ের কিছু দিন পর গৃহবধূর মোবাইলে ফুলহরি গ্রামের মোসলেম বেপারীর পুত্র মোঃ লিটন বেপারী যোগাযোগ শুরু করে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে ভালোবাসা। এবং ভালোবাসা থেকে ওই গৃহবধূকে বেড়াতে বরিশাল নিয়ে যাওয়া ও তার মামতো বোনের বাসায় যাওয়ার কথা বলে। সে মোতাবেক গত বছর ৯/৯/২০ তারিখ বরিশাল নিয়ে সদর রোডে হোটেল শামস এ স্বামী -স্ত্রী হিসেবে ৪১৩ নম্বর কক্ষ ভাড়া নিয়ে ওঠে। গৃহবধূর বর্ণনা অনুযায়ী, হোটেল কক্ষে তাকে কিছু খাইয়ে অচেতন করে শারীরিক সম্পর্ক এবং অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করে। পরবর্তীতে গত ৫/১১/২০ তারিখ উক্ত হোটেলের ৪০৪ নম্বর কক্ষে পুনরায় গৃহবধূকে নিয়ে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে রাত্রি যাপন করে।এবং কৌশলে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করে রাখে।
গৃহবধূ অকপটে জানায়, তার স্বামীর কথা চিন্তা করে এবং যেটুকু হয়েছে তা অন্যায় ভেবে পরবর্তীতে লিটন কর্তৃক মোবাইল ফোন সত্বেও ফোন রিসিভ না করা এবং লিটন বেপারী কর্তৃক মোবাইলে ম্যাসেজের জবাব দেয়া বন্ধ করে দেয়। এতে লিটন ক্ষুব্ধ হয়ে গৃহবধূর সংসার ভেঙে দেওয়ার হুমকি দেয়। নতুবা তার সাথে নিয়মিত বরিশালে গিয়ে হোটেলে রাত্রি যাপন করতে বলে। গৃহবধূ এতে রাজী না হওয়ায় গত ৫ জুলাই তার স্বামীর মোবাইলে ইমুতে অশ্লীল ছবি ও হোটেলে ধারণ করা ভিডিও পাঠায়। বিষয়টি অবহিত হয়ে গৃহবধূ নলছিটি থানায় পর্নোগ্রাফি আইনের একটি অভিযোগ দায়ের করে। এদিকে চতুর লিটন বেপারী গৃহবধূর মামলা থেকে বাঁচতে জনপ্রতিনিধিদের দারস্থ হয়।
গত ১ আগষ্ট রাতে কুশঙ্গল ইউনিয়নের এক বাড়িতে সালিসি বৈঠকের আয়োজনও করা হয়। কিন্তু সালিসি মীমাংসা হয়নি। এদিকে লিটন বেপারী বাংলা টিভি নামক একটি ইউটিউব চ্যানেলে ওই গৃহবধূ ও তার বৃদ্ধ মাকে পতিতাসহ আপত্তি বক্তব্য তুলে ধরে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে অপরাধ করেছে বলে গৃহবধূ উল্লেখ করেন।
প্রতারণার শিকার গৃহবধূ বিষয়টি প্রকাশ করার জন্য অনুরোধ জানায় এবং বিচার দাবী করে। নলছিটি থানার অফিসার ইন চার্জ এ ব্যাপারে বলেন, গৃহবধূর অভিযোগ পাওয়া গেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।
এ ব্যাপারে লিটন বেপারীর ০১৭২৭১২৭১২৩২১৬ নম্বরে ফোন দিলে তিনি সাক্ষাতে এসে তার বক্তব্য জানাবেন বললেও দু’দিনেও তিনি এসে তার বক্তব্য জানাননি। (বিঃদ্রঃ গৃহবধু ও তার মা স্বেচ্ছায় ভিডিও সাক্ষাৎকার দিয়েছেন বিধায় প্রকাশ করা হলো—) সিটি ডেস্ক নলছিটি থেকে প্রাপ্ত । 



আমাদের ফেসবুক পাতা




প্রয়োজনে কল করুন 01740665545

আমাদের ফেসবুক দলে যোগ দিন







Translate »