ভোলার চরফ্যাশেনে অবস্থিত রেডিও মেঘনা ৯৯.০ এফএম

রেডিও মেঘনা ও পরিবর্তনের স্বপ্ন

এপ্রিল ১৫ ২০২১, ১৫:২০

Spread the love

রেডিও মেঘনা ও পরিবর্তনের স্বপ্ন

নিজস্ব সংবাদদাতা আজকের ঝলক : 

বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের বিনোদন ও সচেতন বার্তা আদান প্রদান করার অন্যতম মাধ্যম হলো কমিউনিটি রেডিও । ভোলা জেলার চরফ্যসন উপজেলায় বেসরকারি সেচ্চাসেবী প্রতিষ্ঠান কোস্ট ট্রাস্টের (বর্তমানে কোস্ট ফাউন্ডেশন) উদ্যোগে ২০১৪ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় রেডিও মেঘনা ৯৯.০ এফএম।

শুরুর ইতিহাস: 

২০১৪ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি ততকালীন গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় তথ্যমন্ত্রী আহসানুল হক ইনু, পরিবেশ ও বন প্রতিমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, সচিব তথ্য মন্ত্রনালয়, মহাব্যবস্থাপক বাংলাদেশ বেতারসহ সংশ্লিষ্ট স্টেক হোল্ডারগণ উদ্বোধন করেন । চরফ্যাশন টাউন হলে অনাড়ম্বর এক অনুষ্ঠানে কোস্ট ট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালক রেজাউল করিম চৌধুরীর সঞ্চালনায় ভোলার চরফ্যাশের মানুষের কাছে পৌঁছে যায় রেডিও মেঘনার বার্তা ।

প্রাথমিক অবস্থায় মৌসুমী ও মুনিয়া নামে দুজন কিশোরী রেডিওর সার্বিক অনুষ্ঠান দেখাশুনা করার দ্বায়িত্ব পান । কোস্ট ট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালকের স্বপ্ন ছিলো এটি হবে দেশের একমাত্র রেডিও যেটি শুধু নারীরা পরিচালনা করবে । তখনকার দায়িত্বে থাকা সবাই অবাক হয়ে যান এটি কি করে সম্ভব ! । ধীরে ধীরে প্রমান হতে থাকে পদক্ষেপ গ্রহন করে তা চর্চা করলেই কেবল বাস্তবায়ন সম্ভব । সমান সুযোগ সুবিধা দিয়ে স্থানীয় কিশোরীদের প্রশিক্ষণ দেয়া শুরু হয় । ততকালীর কোস্ট ট্রাস্টের আঞ্চলিক টিম লিডার জহিরুল ইসলাম বলেন ‘‘ প্রাথমিক অবস্থায় রেজা ভাইর মুখে যখন শুনি এই রেডিওটি শুধু মেয়েরাই পরিচালনা করবে তখন একটি কঠিন মনে হয়েছিলো, শুরুতে বেশ কিছু সমস্যা মোকাবেলা করতে হয়েছিলো বিশেষ করে নেতৃত্ব ও কিশোরীদের টীম বিল্ডিং নিয়ে, ধীরে ধীরে যখন মেয়েরা প্রশিক্ষিত হয়েছে তখন তাদের আচরণ পরিবর্তন হয়েছে এবং একটি টীম হিসাবে কাজ করতে অভ্যস্ত হয়ে গেছে , আমার কাছে মনে হয় এটি বাংলাদেশে তথা বিশ্বের ১ম রেডিও যেটি শুধু নারীরা (কিশোরীরা) পরিচালনা করছ ‘’।

এক ঝাক কিশোরীর স্বপ্ন রেডিও মেঘনা : 

রেডিও মেঘনা ৬ মাস পার হতেই ১২ জন কিশোরী বেশ দক্ষ হয়ে ওঠেন । শুরু হয় দ্বায়িত্ব প্রদান ও সম্মানীর ব্যবস্থা করা । এক এক কিশোরীকে সহকারী স্টেশন ম্যানেজর, প্রোডিউসার, এডিটর, কন্ট্রোলার, নিরাপত্তা, সংবাদ প্রতিনিধি ,সংবাদ পাঠক, উপস্থাপক পদে দায়িত্ব দেয়া হয় । কিশোরীদের চোখে মুখে তখন শুধু ফুটে ওঠে রেডিও মেঘনাকে একটি উচ্চতায় নিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন ।  এরপরে আর পিছে ফিরে তাকাতে হয়নি রেডিও মেঘনাকে ধীরে ধীরে দক্ষ হয়ে উঠছে কিশোরীরা । কেউ চাকুরি নিয়ে, বিবাহিত হয়ে অনত্র চলে যাচ্ছে কিন্তু একের পরে একজন দ্বায়িত্ব নেয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে আছে । এভাবে প্রজন্মের পরে প্রজন্ম ধরে মেয়েদের হাত ধরে চলবে রেডিও মেঘনা । কোনো একদিন হয়তো তারা পরিচালনা করবে কমিউনিটি টেলিভিশন ।

রেডিওর প্রচার সময় 

রেডিওটি বর্তমানে সরাসরি শোনা যায় সকাল ৯টা থেকে ১২টা এবং বিকাল ৫টা থেকে রাত ৮টা ।

৯৯.০  এফ এম এবং সরাসরি শোনা যায় অনলাইন http://radiomeghna.net/

রেডিওটির প্রচার এলাকা : 

অনলাইনে সারাপৃথিবী থেকে শোনা যাবে রেডিওটি ।  এফএম ৯৯.০ মেঘনা অববাহিকা বিচ্ছিন্ন ও ক্ষুদ্র দ্বীপসমূহ (ভোলার চরফ্যাশন ও মনপুরা উপজেলার অন্তর্গত) নদীভাঙন ও ঘুর্ণিঝড় প্রবণ এলাকা।

রেডিও মেঘনা যে উদ্দেশ্য নিয়ে প্রতিষ্ঠিত :

১.। উপকুলে নিয়োজিত আইন শৃঙ্খলা কর্তৃপক্ষের সাথে মতবিনিময়ের মাধ্যমে সমুদ্রগামী ক্ষুদ্র্র মৎসজীবি এবং বিচ্ছিন্ন ক্ষুদ্র দ্বীপবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে অবদান রাখা।

২। মেঘনার অববাহিকায় ইলিশসহ সামগ্রিক মৎস সম্পদ সংরক্ষণে স্থানীয় জেলে ও কর্তৃপক্ষের সহায়তায় প্রাকৃতিক মৎস ব্যবস্থাপনা গড়ে তোলার কাজে ভুমিকা রাখা।

৩। জলবায়ু পরিবর্তনের সবচেয়ে বেশি প্রভাবান্বিত জনগোষ্ঠী হিসেবে বিচ্ছিন্ন চর ও উপকুলবাসীর মধ্যে জলবায়ু সহায়ক কৃষি এবং বৈচিত্রপূর্ণ খাদ্য উৎপাদনে কৃষকের সক্ষমতা তৈরির মাধ্যমে উপকুলের খাদ্য নিরাপত্তা গড়ে তুলতে ভুমিকা রাখা।

৪। বিশেষ করে বাল্য বিবাহ ও পারিবারিক নির্যাতন বিরোধী সচেতনতা গড়ে তোলার মাধ্যমে নারীর সমতা ও সাম্যতা গড়ে তোলা।

৫। শহর ও গ্রামের মধ্যকার ডিজিটাল বৈষম্য দূর করা এবং ডিজিটাল ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা করার লক্ষে উপকুলের অবহেলিত মানুষের মাঝে জ্ঞান, তথ্য ও প্রযুক্তির ব্যবহার বৃদ্ধিতে সহায়তা করা।

৬। স্থানীয় জনগোষ্ঠীর, বিশেষ করে যুব নারী ও প্রান্ত্মিক জনগোষ্ঠীর মেয়েদের রেডিও উপস্থাপক ও প্রযোজক হিসেবে গড়ে তোলা যাতে তথ্য প্রযুক্তিতে নারীর অংশগ্রহনের মাধ্যমে নিজেদের উন্নয়নে তারা সক্রিয় ভুমিকা রাখতে পারে।

৭। শ্রোতা সাধারণকে রেডিও অনুষ্ঠানে সক্রিয় অংশগ্রহণে উদ্বুদ্ধ করার মাধ্যমে স্থানীয় যথাযথ ও স্থায়িত্বশীল জীবনযাত্রা গড়ে তোলা যেখানে মানবাধিকার ও গণতান্ত্রিক নাগরিক চর্চাই হবে প্রধান। সূত্র : নির্বাহী পরিচালক কোস্ট ট্রাস্ট ।

রেডিওটি যেসকল অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে

প্রতিদিন সংবাদ, পাঠশালা, কৃষি কথা, সফল নারী, আমার মা, স্বাস্থ্য সচেতনা, বাল্য বিবাহ, উপকূলীয় সমস্য, জেলেদের কথাসহ বিভিন্ন সচেতন বার্তা দিচ্ছে রেডিও মেঘনা । বর্তমানে করোনা বিষয় সরকারি বেসরকারী পদক্ষেপ ও সচেতন মূলক তথ্য ও ছোট ছোট  ভিডিও প্রচার করছে রেডিওটি ।

বিভিন্ন সরকারী কর্মকর্তারা রেডিওটিতে এসে নিজেদের স্বাক্ষাতকার দিচ্ছেন এবং লাইভ অনুষ্ঠানে সুবিধাভুগীদের প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন ।

সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখে যখন কোনো ঘুর্নঝড় আসে, তখন রেডিওটি ২৪ ঘন্টা খোলা থাকে এবং আবহাওয়া বার্তা প্রচার করে ।

রেডিওটি সারা বছর ধরে যে সকল অনুষ্ঠান করে থাকে । All-Programs-List-Final_At-a-glance_October_December_2019

সাধারণ মানুষ ও রেডিওর সাথে যুক্ত কিশোরীরা মনে করেন রেডিও মেঘনা তাদের আচরণ, জীবিকায়ন পরিবর্তনের স্বপ্ন দেখাচ্ছে এবং সে লক্ষে কাজ করে যাচ্ছে ।

ভিডিও দেখুন : https://www.youtube.com/watch?v=fri9XbJKmMA

আরো পড়ুন উপকূলীয় দরিদ্র মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখছে কোস্ট ট্রাস্ট

চরফ্যাশনে পুকুরে বিষ দিয়ে মাছ নিধন !

তথ্য প্রদান : মো: জহিরুল ইসলাম, উন্নয়ন কর্মী ।

 

ছবি সংগৃহীত ।

 



আমাদের ফেসবুক পাতা




প্রয়োজনে কল করুন 01740665545

আমাদের ফেসবুক দলে যোগ দিন







Translate »